টিউটোরিয়াল ভিডিওডকুমেন্ট ফরমেট

অংশীদারি ব্যবসার চুক্তিপত্র লেখার নিয়ম, পার্টনারশিপ চুক্তিপত্রের নমুনা

এই পোষ্টের মাধ্যমে জানতে পারবেন কিভাবে পার্টনারশিপ চুক্তিপত্রের নমুনা বা অংশীদারি ব্যবসার চুক্তিপত্র লেখার নিয়ম (Business Partnership Deed)। এবং ফরমেট দেখে নিজে নিজেই তৈরি করে ফেলুন পার্টনারশিপ চুক্তিপত্র দলিল।

অংশীদারি ব্যবসার চুক্তিপত্র লেখার নিয়ম

যেকোন চুক্তিপত্র করতে গেলে বাংলাদেশের আইন অনুসারে তিনটি একশত টাকার স্ট্যাম্পে প্রিন্ট করতে হয়। ব্যবসায়ীক অংশীদারী চুক্তিপত্র (Business Partnership Deed) লিখতে গেলে আপনি চাইলে তিনটি ষ্ট্যাম্পেও প্রিন্ট করতে পারেন কিন্তু আপনি যদি এই ব্যবসায়ী অংশীদারী চুক্তিপত্র দিয়ে ব্যাংক থেকে লোন নিতে চান বা ব্যাংকে যদি কোন কাগজপত্র জমা দেওয়ার মত দরকার হয় তখন আপনাকে ২০ (বিশ) টি ১০০ (একশত) টাকার ষ্ট্যাম্পেই প্রিন্ট করতে হবে, এছাড়া ব্যাংকে গ্রহণযোগ্যতা থাকবে না। তবে আপনার চুক্তিপত্রের লেখা গুলো যদি কমও হয় তাহলেও আপনি কিছু কিছু লিখা করে একেক পেইজে দিয়ে ২০ পেইজের মাধ্যমেই প্রিন্ট করতে হবে বা তিন পেইজে লেখাগুলোকে দিয়ে বাকী স্ট্যাম্প গুলোকে শুধু নাম্বার দিয়ে দিয়ে পুরণ করে বিশটি ষ্ট্যাম্প একসাথে করেই যেকোন কাজে ব্যাংকে জমা দিতে হবে।

ষ্ট্যাম্পে প্রিন্ট করার আগে এমএস ওয়ার্ডে লেখা গুলোকে লিখতে হবে। এবং Page Setup এ গিয়ে Paper Size এ গিয়ে Legal সাইজ দিতে হবে, Margins এ গিয়ে Top এ 4.5, Bottom এ 1.5, Left এ 1, Right এ 1 ইঞ্চি করে দিতে হবে, তারপর ওকে করে দিতে হবে। এই সাইজ গুলো করার পর ও লেখা গুলোকে সাজানোর পরই প্রিন্ট দেওয়ার জন্য প্রস্তুত হয়। প্রত্যেকটি পেইজে চলমান পাতা-১ ও পাতা নং-২ এবং চলমান পাতা-২ পাতা নং-৩ এভাবে করে প্রত্যেক পেইজে নাম্বার দিয়ে দিয়ে যেতে হবে।

তবে চলুন দেখে নেই কিভাবে ব্যবসায়ী অংশীদারী চুক্তিপত্র লিখতে হয়, কি কি পয়েন্ট তুলে ধরতে হয়।

  • প্রথমেই একটু বড় করে ব্যবসায়ী অংশীদারী চুক্তিপত্র কথাটি লিখা হলো।
  • এর পরের লাইনে চুক্তিপত্রটি কার্যক্রম শুরুর তারিখ বার সময় লিখা হলো।
  • তারপর পরের লাইন থেকে অংশীদারগণের নাম ঠিকানা তুলে ধরা হলো।
  • ১। ব্যবসার নামঃ
  • ২। ব্যবসার ঠিকানাঃ
  • ৩। ব্যবসার কার্য এলাকাঃ
  • ৪। ব্যবসার উদ্দেশ্য ও প্রকৃতিঃ
  • ৫। ব্যবসা আরম্ভের তারিখঃ
  • ৬। মুলধনঃ
  • ৭। মুলধনের উপর সুদঃ
  • ৮। ঋণ গ্রহন তার সুদঃ
  • ৯। উত্তোলনঃ
  • ১০। লাভ লোকসান বন্টনঃ
  • ১১। ব্যবস্থাপনা ও পরিচালনাঃ
  • ১২। পারিশ্রমিকঃ
  • ১৩। চুক্তি ও কাগজ পত্রে স্বাক্ষর দানঃ
  • ১৪। ব্যাংকের নাম ও হিসাবের ধরনঃ
  • ১৫। ব্যাংকের হিসাব পরিচালনাঃ
  • ১৬। হিসাব বৎসরঃ
  • ১৭। হিসাব রক্ষন ও পরিদর্শনঃ
  • ১৮। চুড়ান্ত হিসাব প্রকাশঃ
  • ১৯। নতুন অংশীদার গ্রহনঃ
  • ২০। অংশীদারদের অবসর গ্রহনঃ
  • ২১। অংশীদারের মৃত্যুঃ
  • ২২। পাওনা পরিশোধ পদ্ধতিঃ
  • ২৩। সুনাম মুল্যায়নঃ
  • ২৪। বিলোপ সাধনঃ
  • ২৫। বিরোধ নিস্পত্তিঃ
  • ২৬। শর্তের পরিবর্তনঃ

নিচে অংশীদারি ব্যবসার চুক্তিপত্র নমুনা তুলে ধরা হলোঃ-

ব্যবসায়ী অংশীদারী চুক্তিপত্র

অদ্য ০১-১২-২০২০ইং তারিখ রোজ শুক্রবার সকাল ১০ ঘটিকার সময় আমরা নিম্নে স্বাক্ষরকারীগন।

১) মোঃ ফখরুল আলম, পিতা- মোঃ খুরশেদ আলম, মাতা- ……, ঠিকানা- বনানী, ঢাকা, বাংলাদেশ।

২) মোঃ নিজামুল হক, পিতা- বোরহান পাঠান, মাতা-…………, ঠিকানা- বনানী, ঢাকা, বাংলাদেশ।
৩) হিমেল, পিতা- আব্দুল হক, মাতা-…………, ঠিকানা- বনানী, ঢাকা, বাংলাদেশ।

চলমান পাতা-০২


পাতা নং-০২

প্রত্যেকে বাংলাদেশী ধর্মতঃ মুসলমান ও সাবালক। আমরা প্রত্যেক পক্ষ নিম্নে বর্ণিত শর্ত সাপেক্ষে ঐক্যমত্যের ভিত্তিতে অত্র চুক্তিপত্রে স্বাক্ষর করিলাম।

১) ব্যবসার নামঃ “ম্যারিস কিং” নামে ব্যবসা পরিচালিত হইবে।

চলমান পাতা-০৩

পাতা নং-০৩

২) ব্যবসার ঠিকানাঃ ব্যবসার বর্তমান কর্মস্থলের ঠিকানা হলো- , বনানী, ঢাকা, বাংলাদেশ । পরবর্তীতে উভয় পক্ষের সম্মতিক্রমে এ ঠিকানা পরিবর্তন করা যাবে।

চলমান পাতা-০৪

পাতা নং-০৪

৩) ব্যবসার কার্য এলাকাঃ সমগ্র বাংলাদেশে ব্যবসার কার্য্যক্রম পরিচালিত হবে। প্রয়োজনে দেশের যে কোন স্থানে অফিস খোলা হবে।

৪) ব্যবসার উদ্দেশ্য ও প্রকৃতিঃ রিক্রুটিং। দেশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে সিকিউরিটি গার্ড, ডেলিবারিম্যান ও গৃহপরিচারিকা রিক্রুটিং এর ব্যবসায় নিয়োজিত থাকবে। কিন্তু ভবিষ্যতে প্রয়োজনবোধে উভয় পক্ষের সম্মতিক্রমে যে কোন বৈধ ব্যবসা পরিচালনা করতে পারবে।

চলমান পাতা-০৫

পাতা নং-০৫

৫) ব্যবসা আরম্ভের তারিখঃ ০১ নভেম্বর ২০২০ ইং তারিখ ব্যবসার কার্যক্রম শুরু করা হবে।

৬) মুলধনঃ ব্যবসায়ে মোট মুলধন ২০,০০,০০০/- (বিশ লক্ষ) টাকা মাত্র তিনজন অংশীদার সমপরিমান মূলধন সরবরাহ করিবেন। চেয়ারম্যান ফখরুল আলম, নিজামুল ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও হিমেল উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে এই ব্যবসা পরিচালনা করবেন। ভবিষ্যতে অতিরিক্ত মুলধন প্রয়োজন হলে সকল পক্ষের সম্মতিক্রমে প্রত্যেক অংশীদার তা সরবরাহ করবে।

চলমান পাতা-০৬

পাতা নং-০৬

৭) মুলধনের উপর সুদঃ মুলধনের উপর কোন অংশীদারকে কোন প্রকার সুদ দেওয়া হবে না।

৮) ঋণ গ্রহন তার সুদঃ সর্বসম্মতি ক্রমে ব্যবসার প্রয়োজন যে কোন ব্যাংক বা তৃতীয় কোন ব্যক্তি থেকে প্রচলিত সুদের হার ঋন গ্রহন করতে পারবে। তবে কোন অংশীদার এই ঋন প্রদান করতে চাইলে তা অগ্রাধিকার পাবে। তবে সে ক্ষেত্রে বার্ষিক ১০% হারে সুদ প্রদান করবে।

চলমান পাতা-০৭

পাতা নং-০৭

৯) উত্তোলনঃ অংশীদারগন নিজেদের প্রয়োজনে কোন সদস্য কোন প্রকার অর্থ (ঋণ) উত্তোলন করতে পারবে না।

১০) লাভ লোকসান বন্টনঃ সকল অংশীদার সমহারে লাভ লোকসান ভোগ করবে।

চলমান পাতা-০৮

পাতা নং-০৮

১১) ব্যবস্থাপনা ও পরিচালনাঃ সকল পক্ষের সম্মতিক্রমে অংশিদার ফখরুল আলম চেয়ারম্যান, নিজামুল ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও হিমেল উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে এই ব্যবসা পরিচালনা করবেন।

১২) পারিশ্রমিকঃ অংশীদারগণের আলোচনা সাপেক্ষে পারিশ্রমিক নির্ধারণ করা হবে।

চলমান পাতা-০৯

পাতা নং-০৯

১৩) চুক্তি ও কাগজ পত্রে স্বাক্ষর দানঃ যাবতীয় কাগজ পত্র সকল অংশীদারগণ স্বাক্ষর করবে। চুক্তির শর্তাবলী সকল পক্ষের ঐক্যমত্যের ভিত্তিতে স্থির করা হবে।

চলমান পাতা-১০

পাতা নং-১০

১৪) ব্যাংকের নাম ও হিসাবের ধরনঃ বাংলাদেশের যে কোন তফসিলি ব্যাংকে একটি চলিত হিসাব খোলা হইবে। প্রয়োজনে দেশের যেকোন ব্যাংক একাউন্ট খোলা হবে।

চলমান পাতা-১১

পাতা নং-১১

১৫) ব্যাংকের হিসাব পরিচালনাঃ সকল অংশীদারগণ ব্যাংক হিসাব পরিচালনা করবে।

১৬) হিসাব বৎসরঃ ১লা জুলাই থেকে ৩১শে জুন প্রতিষ্ঠানের হিসাব বৎসর হিসাবে গন্য করা হবে।

চলমান পাতা-১২

পাতা নং-১২

১৭) হিসাব রক্ষন ও পরিদর্শনঃ ব্যবসায়ের হিসাব নিয়মিত ও সঠিক উপায়ে রাখার জন্য প্রয়োজনীয় সংখ্যক হিসাবের বই প্রতিষ্ঠানের কার্যালয়ে সংরক্ষন করতে হবে। চুক্তিভুক্ত যে কোন অংশীদার বা তার পক্ষের যে কোন আইনানুগ প্রতিনিধি যে কোন সময়ে হিসাব বই পরিদর্শন করতে পারবে। এবং অনুলিপি সংগ্রহ করতে হবে।

চলমান পাতা-১৩

পাতা নং-১৩

১৮) চুড়ান্ত হিসাব প্রকাশঃ প্রতিবছর ৩১ শে জুন পরবর্তী এক মাসের মধ্যে চুড়ান্ত হিসাব তৈরী করে প্রয়োজনীয় নিরীক্ষা সাপেক্ষে অংশীদারী সভায় পেশ করতে হবে।

চলমান পাতা-১৪

পাতা নং-১৪

১৯) নতুন অংশীদার গ্রহনঃ সর্বসম্মতি ক্রমে ব্যবসার প্রয়োজনে নতুন অংশীদার গ্রহন করা যাবে।

চলমান পাতা-১৫

পাতা নং-১৫

২০) অংশীদারদের অবসর গ্রহনঃ যে কোন অংশীদার ইচ্ছা করলে অবসর গ্রহন করতে পারবে। তবে ছয় মাসে আগে অবসরের লিখিত নোটিশ প্রদান করতে হবে।

চলমান পাতা-১৬

পাতা নং-১৬

২১) অংশীদারের মৃত্যুঃ কোন অংশীদার মৃত্যুবরন করলে তার আইনানুগ প্রতিনিধি বা উত্তরাধিকারী অন্যন্য অংশীদারের সাথে চুক্তি করে ব্যবসা চালিয়ে যেতে পারবে।

চলমান পাতা-১৭

পাতা নং-১৭

২২) পাওনা পরিশোধ পদ্ধতিঃ অবসর গ্রহণকারী বা মৃত অংশীদারের পাওনা পরবর্তি ছয় মাসের মধ্যে সমান তিন কিস্তিতে শোধ দিতে হবে।

চলমান পাতা-১৮

পাতা নং-১৮

২৩) সুনাম মুল্যায়নঃ প্রতিষ্ঠানের সম্পত্তি ও দায় এর উপযুক্ত মুল্যায়নের মাধ্যমে সুনাম নির্নিত হবে।

২৪) বিলোপ সাধনঃ কোন কারনে ব্যবসা বিলোপ সাধন প্রয়োজন হলে সেক্ষেত্রে ১৯৩২ অংশীদারী আইন অনুযায়ী সম্পাদন করতে হবে।

চলমান পাতা-১৯

পাতা নং-১৯

২৫) বিরোধ নিস্পত্তিঃ অংশীদারী আইন অনুযায়ী বিরোধ নিস্পত্তি হবে।

২৬) শর্তের পরিবর্তনঃ সর্বসম্মতি ক্রমে ব্যবসার প্রয়োজনে যেকোন শর্ত পরিবর্তন বা নতুন শর্ত অন্তর্ভুক্ত করা যাবে।

চলমান পাতা-২০

পাতা নং-২০

আমরা উভয়পক্ষ সম্পূর্ণ সুস্থ মস্তিস্কে ও স্বজ্ঞানে, অন্যের বিনা প্ররোচনায় স্বাক্ষীগনের উপস্থিতিতে অত্র চুক্তিপত্রে স্বাক্ষর করিলাম। ইতি
তারিখঃ

স্বাক্ষীগনের স্বাক্ষরঅংশীদারগনের স্বাক্ষর
১)

২)

৩)
১। মোঃ ফখরুল আলম

২। মোঃ নিজামুল হক

৩। হিমেল

👉👉ব্যবসায়ের শেয়ার বিক্রয় দলিল করার নিয়ম জেনে নিন

শেষ কথাঃ

আশা করি উপরে দেখানো অংশীদারি ব্যবসার চুক্তিপত্র লেখার নিয়ম সম্পর্কে জানতে পারলেন বা পার্টনারশিপ চুক্তিপত্রের নমুনা দেখতে পেলেন। যে নিয়মে নিজেদের প্রয়োজনে চুক্তিনামা তৈরি করে নিতে পারবেন। ফরমেট দেখে নিজে নিজেই তৈরি করে ফেলুন পার্টনারশিপ চুক্তিপত্র দলিল। চাইলে এখানের তথ্য গুলো কপি করে নিয়ে নিজের মত করে তৈরি করতে পারবেন। লেখাটি পড়ার জন্য ধন্যবাদ।

👉ভিডিও দেখুন- পার্টনারশিপ ব্যবসার চুক্তিপত্র কিভাবে করতে হয়👇

পার্টনারশিপ ব্যবসার চুক্তিপত্র, অংশীদারি ব্যবসা চুক্তিপত্র, Partnership Deed Agreement

আরো জানুন-

Quick Bangla

বাংলা তথ্যভিত্তিক ওয়েবসাইট হিসেবে পরিচালিত এই সাইটটি। তাই বাংলায় অনেক ধরনের তথ্যই এখানে পেয়ে যাবেন। আশা করি সঠিক তথ্য বিষয়বস্তু জানতে পারবেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close

Adblock Detected

Please Turn off ad blocker